স্বাস্থ্য

আপনার শিশুর জন্য কত ফর্মুলা দুধ প্রয়োজন? razuaman.com

ফর্মুলা খাওয়া নবজাতকদের প্রতি 2-3 ঘন্টায় খেতে দেওয়া উচিৎ। তারা যত বড় হয় তাদের পেটের ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়, তারা তখন একটি ফিডে বেশি খেতে থাকে এবং প্রতি 3-4 ঘন্টাতে খাবার খাওয়াতে হয়।
মা হিসাবে আপনার অনেক কাজের মধ্যে।

আপনার সন্তানকে স্বাভাবিক স্বাস্থ্য বৃদ্ধির মাধ্যমে শক্তিশালী এবং সুখী শিশু হিসাবে গড়ে তোলাই সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। যে খাবার আপনার শিশুর সুস্থ, সুখী ও শক্তিশালী বিকাশের জন্য জরুরি, সেটি সম্পর্কে যত্ন নেওয়া দরকার এবং সে ক্ষেত্রে কারও কিছু বলার অপেক্ষা রাখে না।

প্রতিটি বাচ্চার তার পুষ্টির চাহিদাগুলি প্রতি মাসে পরিবর্তিত হওয়ার জন্য আপনার বাচ্চাদের কতটা ফর্মুলা দুধ প্রয়োজন তা নির্ণয় করা কঠিন হতে পারে।
সাধারণত যখন তারা ক্ষুধার্ত হয় তখনই খায় এবং যখন তারা পেট ভরে গেছে মনে করে তখনই তারা খাওয়া বন্ধ করে দেয়। ফর্মুলা-খাওয়ানো শিশুরা বেশি খেতে থাকে এবং বুকের দুধ খাওয়ানোর চেয়ে বেশী ওজনের হয়ে থাকে।

বাচ্চাদের জন্য ফর্মুলা দুধ পরিমাপের মূল নিয়মটি হল এটি তাদের শরীরের ওজন অনুযায়ী পরিমাপ করা হয়। বাচ্চাদের শরীরের প্রতি কেজি ওজনের জন্য দিনে 150 মিলি থেকে 200 মিলি ফর্মুলার প্রয়োজন হয়।
অর্থাৎ, যদি কোনো শিশু 3 কেজি ওজনের হয় তবে প্রতিদিন তার 450 মিলি থেকে 600 মিলি ফর্মুলার প্রয়োজন হবে। তবে তারা হয়তো তাদের প্রথম সপ্তাহে এতটা খেতে চাইতে না পারে বা প্রতিবার খাওয়ার সময় একই পরিমাণ খেতে নাও পারে, তাই মনে রাখবেন তাদের খাওয়ার জন্য জোর করা উচিৎ হবে না।

আপনার শিশুর জন্য কত  ফর্মুলা দুধ প্রয়োজন

কত ঘন ঘন আপনার শিশুকে খাওয়াতে হবে?

বাচ্চারা খেতে চাইলে খাওয়ানোর পরামর্শ দেওয়া হয়, অর্থাৎ যখনই তাদের ক্ষুধার লক্ষণ দেখা যাবে তখনই তাদের খাওয়াতে হবে। ফর্মুলা খাওয়া নবজাতকদের প্রতি 2-3 ঘন্টায় খেতে দেওয়া উচিৎ।

তারা যত বড় হয় তাদের পেটের ক্ষমতা বৃদ্ধি পায়, তারা তখন একটি ফিডে বেশি খেতে থাকে এবং প্রতি 3-4 ঘন্টাতে খাবার খাওয়াতে হয়। আগে উল্লেখ করা হয়েছে, আপনাকে শিশুকে খাওয়ানোর সময়ের সংকেতের দিকে চোখ রাখতে হবে এবং সেই অনুযায়ী খাওয়াতে হবে।

যতক্ষণ না বাচ্চা আপনার খাওয়ানোর অপেক্ষায় অস্থির হয়ে কাঁদতে শুরু করে, ততক্ষণ পর্যন্ত আপনাকে অপেক্ষা করতে হবে না কান্না প্রায়ই ক্ষুধার্ত হওয়ার একটি বিলম্বিত চিহ্ন। সন্তান যথেষ্ট পরিমাণে খেয়েছে – তার লক্ষণগুলিও, যেমন খাওয়া ধীর হয়ে যাওয়া এবং থেমে যাওয়া, সন্ধান করা সমানভাবে গুরুত্বপূর্ণ।

Leave a Reply

Your email address will not be published.