Uncategorized

ইতিহাসের সর্বোচ্চ গোলদাতা এখন রোনালদো 2022

সাফল্যের আরো একটা চূড়া ডিঙিয়ে ফেললেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো। ইতিহাসের প্রথম ফুটবলার হিসেবে ক্লাব এবং আন্তর্জাতিক মিলিয়ে ৮০০ গোলের মাইলফলক স্পর্শ করলেন সিআর সেভেন। আর এই পথ পাড়ি দিতে রোনালদোকে খেলতে হয়েছে এক হাজার ৯৭ ম্যাচ। রোনালদোর পিছনেই আছেন পেলে, আর তারপরের নামটা লিওনেল মেসি।

লিওনেল মেসির হাতে যখন ব্যালো দ্য অঁর, চারিদিকে হাসির রোল; কোথাও আবার সমালোচনা ঝড়। তখন প্রাসংগিকভাবেই এসেছে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর নাম, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমের এক কমেন্টেও নাকি ক্রিশ্চিয়ানো বুঝিয়েছেন, এবারের পুরস্কারটা মেসির হাতে যাওয়া ঠিক হয়নি।

তবে ঠিক বেঠিকের সেই আলাপের মাঝেই আরেকটা অনন্য কীর্তি, সাফল্য চূড়ায় চড়ে থাকা রোনালদোকে নিয়ে গেছে আরো ওপরে। ক্লাব ও আন্তর্জাতিক মিলিয়ে ৮০০ গোলের মাইলফলক ছোঁয়া একমাত্র ফুটবলার এখন রন। ওর ধারে কাছেও আর কেউ নেই।

গোলের হিসেবে রোনালদোর পরেই যার নাম তিনি ব্রাজিলিয়ান কিংবদন্তি পেলে, তিনিও ক্রিশ্চিয়ানোর চেয়ে পিছিয়ে আছেন ৩৬ গোলে। তার পরের নামটা লিওনেল মেসির, সপ্তমবার ব্যালো দ্য অঁর জেতা মেসি সিআর সেভেনের চেয়ে পিছিয়ে আছেন প্রায় পঞ্চাশ গোলে।

আরও পড়ুন: সাকিব-মেহেরবের বোলিং তোপে হ্যাট্রিক জয় বাংলাদেশ যুবাদের

একের পর এক রেকর্ড গড়ার খেলায় ক্রিশ্চিয়ানো তালগাছ ছাড়িয়ে গেছেন, এখন তার সব গাছকে ছাড়িয়ে কেবল আকাশে তাকিয়ে থাকার পালা। উড়ন্ত বিহঙ্গের মতোই চলছে তার এই ভাঙা গড়ার খেলা।  ইউরোর সেরা গোলদাতা, দেশের হয়ে সর্বোচ্চ গোল, এমন বয়সেও দারুণ খেলা চালিয়ে যাওয়া, সবমিলিয়ে তো রোনালদো এক বিস্ময়চূড়ার নাম।

আর সেই বিস্ময়চূড়ায় চড়তে সাহস লাগে, লাগে অদম্য দম। থাকতে হয় আকাশের মতো বিশাল মন, হতে হয় কোনো এক মহাবীরের মতো সক্ষম। কে সেরা মেসি নাকি রোনালদো, কার চেয়ে কতো বেশি কার গোল, সেসব কেবল সংখ্যার হিসেব, খবরে উপাদেয়, চায়ের দোকানে ভক্তদের শোরগোল।

সেরার তালিকায় থাকলেন, কে কে তার নাম ধরে ডাকলেন, কে দিলেন গালি; ওসবে পর্তুগিজ নাবিকের কিছুই যায় আসে না। হৃদয়ের রোগকে হার মানিয়ে কোটি মানুষের হৃদয় জেতা ক্রিশ্চিয়ানো জানেন, নাম-দাম-প্রতিপত্তি আসে যায়, গোলের হিসেবও মহাকালে হারায়। থাকে কেবল ভালোবাসা আর লড়াইয়ের গল্প, তাই সেই লড়াইটা করে যাচ্ছেন নিজের মতো।

সবাই যখন তার ফুরিয়ে যাওয়া দেখছেন, তখন তিনি সেই হন্তারক চোখের ভবিষ্যতবাণী উড়িয়ে দিয়ে মহাকাব্য লিখছেন।

সমৃদ্ধ ক্যারিয়ারে অসংখ্য রেকর্ড গড়ে চলেছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো। সাফল্যমণ্ডিত সেই পথচলায় এবার বুঝি সবচেয়ে ঝলমলে কীর্তিটি গড়লেন তিনি। ক্লাব ও জাতীয় দল মিলে সর্বোচ্চ গোলের রেকর্ডে অস্ট্রিয়া ও সেই সময়ের চেকোস্লোভাকিয়ার সাবেক স্ট্রাইকার ইয়োসেপ বিকানের পাশে বসেছেন পর্তুগিজ তারকা।

সেরি আয় রোববার রাতে আলিয়াঞ্জ স্টেডিয়ামে সাস্সুয়োলোর বিপক্ষে ইউভেন্তুসের ৩-১ ব্যবধানের জয়ে শেষ গোলটি করে কীর্তিটি গড়েন রোনালদো। ম্যাচের যোগ করা সময়ে নিজেদের অর্ধ থেকে দানিলোর উঁচু করে বাড়ানো বল ধরে ডি-বক্সে ঢুকে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন তিনি। উঠে বসেন সুউচ্চে, বিকানের পাশে।

১৯৩০ ও ৪০’ এর দশকে মাঠ মাতিয়েছিলেন বিকান। সে সময়ে বর্তমানের মতো এতটা নিখুঁতভাবে পরিসংখ্যান রাখা হতো না। তাই অনেক বিতর্কও আছে। তবে ডেইলি মেইলসহ বেশ কিছু পত্রিকায় প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচে বিকানের গোল দেওয়া আছে ৭৫৯টি। রেকর্ডটি ছুতে ১০৩৯ ম্যাচ লাগল পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার রোনালদোর।

গত ৩ জানুয়ারি ঘরের মাঠে সেরি আয় উদিনেজের বিপক্ষে দলের ৪-১ ব্যবধানে জয়ের পথে দুবার জালে বল পাঠিয়ে সর্বোচ্চ গোলের তালিকায় পেলেকে ছাড়িয়ে দুইয়ে উঠে এসেছিলেন ইউভেন্তুস তারকা।

২০০২ সালে স্বদেশের ক্লাব স্পোর্তিং লিসবনের হয়ে পেশাদার ক্যারিয়ারে পথচলা শুরু হওয়া রোনালদো ক্লাব ফুটবলে করেছেন ৬৫৭ গোল। আর জাতীয় দলের হয়ে ১৭০ ম্যাচ খেলে ১০২ গোল করেছেন তিনি। এর অর্থ ১৮ বছরের ক্যারিয়ারে গড়ে প্রতি মৌসুমে ৪২টি করে গোল করেছেন পাঁচবারের বর্ষসেরা ফুটবলার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button