জমি জায়গা

এস এ (Sa) খতিয়ান বের করার নিয়ম – খতিয়ান বের করার নিয়ম 2021

আপনারা যদি এস এ খতিয়ান বের করার নিয়ম জানতে চান তাহলে আমাদের ওয়েবসাইটে এসে ভালো করেছেন। আমরা আপনাদেরকে এস এ খতিয়ান বের করার নিয়ম হাতে-কলমে শিখিয়ে দেবো। অর্থাৎ এস এ খতিয়ান বের করার ধাপগুলো একে একে দেখিয়ে দেব। যদি আপনাদের এটি প্রয়োজনীয় হয় তাহলে অবশ্যই ঘরে বসে এস এ খতিয়ান বের করতে পারবেন।

গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলো গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করতে হয় এবং তৎক্ষণাৎ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হয়। তাই আপনার যেকোনো প্রয়োজনীয় মুহূর্তে এসে খতিয়ান ঘরে বসে অনলাইনের মাধ্যমে বের করে ফেলুন। এতে আপনার সময় এবং শ্রম দুটোই বেঁচে যাবে। তাহলে চলুন আমরা এসে খতিয়ান বের করার নিয়ম হাতে কলমে শিখে ফেলি।

আপনারা খুব সহজ উপায়ে এস এ খতিয়ান বের করে নিতে পারবেন। তার জন্য আপনাকে যেকোন একটি ব্রাউজার ওপেন করতে হবে। ব্রাউজার এ প্রবেশ করলেই আপনারা সার্চ বারে গিয়ে লিখুন www.land.gov.bd । তারপরে আপনারা সার্চ করুন। আপনাদের সামনে যে সকল রেজাল্ট চলে আসবে তার মধ্যে প্রথম ওয়েবসাইটে প্রবেশ করবেন। সেই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে আপনারা নিচে চলে যাবেন।

তারপরে আপনারা এই ওয়েবসাইটের ভূমি মন্ত্রণালয় নামক অপশনে প্রবেশ করবেন। ‌উল্লেখিত ওয়েবসাইটের নিচের দিকে গেলে আপনারা খতিয়ান নামক অপশন পাবেন। এই খতিয়ান নামক অপশনে ক্লিক করবেন। খতিয়ানে প্রবেশ করার পর আপনাদের সামনে একটি ইন্টারফেস চলে আসবে। এই ইন্টারফেসে আপনারা কি ধরনের খতিয়ান চাচ্ছেন তা উল্লেখ করা আছে। যেহেতু আপনারা এস এ খতিয়ান জানতে চাচ্ছেন সেহেতু এছাড়া এর উপরে ক্লিক করুন। এস এ খতিয়ান এর উপরে ক্লিক করা হলে আপনাদের সামনে বেশ কয়েকটি অপশন চলে আসবে।

সেখানে আপনারা ক্রমে ক্রমে আপনাদের বিভাগের নাম, জেলার নাম, এলাকার নাম এবং মৌজার নাম উল্লেখ করতে হবে। অবশ্য সেখানে আপনারা বিভাগ দিলে অন্যান্য অপশন আপনি পেয়ে যাবেন এবং সেগুলোর মধ্যে সঠিক অপশন চয়েজ করে সিলেক্ট করবেন। উল্লেখিত বিষয়গুলো আপনারা সঠিকভাবে পূরণ করলে আপনাদের সামনে আরো কয়েকটি অপশন চলে আসবে।

অপশনগুলো ভেতরে আপনারা যে কোন একটি পদ্ধতি অবলম্বন করে এস এ খতিয়ান দেখতে পারবেন। এস এ খতিয়ান দেখার জন্য আপনারা যদি খতিয়ানের নম্বর অথবা দাগ নম্বর মনে রাখতে পারেন তাহলে যেকোনো একটি অপশন সিলেক্ট করে সেই নাম্বার গুলো বসাবেন। আর যদি দাগ নম্বর মনে না থাকে তাহলে মালিকানার নাম বসাবেন অথবা পিতা ও স্বামীর নাম বসাবেন।

তারপরে আপনাদের এই তথ্যগুলো পূরণ করা হয়ে গেলে নিচের দিকে যে ক্যাপচা পূরণ করতে বলা হয়েছে সেটি সঠিকভাবে পূরণ করবেন। যদি বাংলা অক্ষর লেখা থাকে তাহলে বাংলাতেই ক্যাপচা পূরণ করবেন এবং ইংরেজিতে লেখা থাকলে ইংরেজিতে ক্যাপচা পূরণ করবেন। তারপরে অনুসন্ধান করুন নামক অপশনটিতে ক্লিক করুন।

আপনাদের উল্লেখিত তথ্য যদি সঠিক হয়ে থাকে তাহলে আপনাদের সামনে এসে খতিয়ান চলে আসবে। সেই খতিয়ানে মালিকানার নাম এবং দখলদার এর নাম উল্লেখ করা থাকবে। আশা করি এভাবে আপনারা খুব সহজ উপায়ে এস এ খতিয়ান দেখতে সক্ষম হবেন। তারপরেও কোনো ব্যাক্তি যদি এই পদ্ধতি বুঝতে না পারেন তাহলে আমাদের কোথায় বুঝতে পারেননি তা জানাতে পারেন।

এখন আপনারা যদি এস এ খতিয়ানের কোন কপি সংগ্রহ করতে চান তাহলে দুই উপায় কপি সংগ্রহ করতে পারবেন। অনলাইন কপির জন্য আপনারা সেখানেই অনলাইনে আবেদন করতে পারেন। অনলাইনে আবেদনের জন্য আপনাদের ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার, মোবাইল নাম্বার, জন্মতারিখ, ইমেইল এবং ঠিকানা আবারো উল্লেখ করতে হবে।

সঠিকভাবে সকল তথ্য পূরণ করলে আপনারা অনলাইন থেকে এস এ খতিয়ানের কপি ডাউনলোড করতে পারবেন। আর যদি এর সার্টিফাইড কপি পেতে চান তাহলে ভূমি অফিসের নিকট আবেদন করুন অথবা অনলাইনের মাধ্যমে আবেদন করে ভূমি অফিস থেকে তা সংগ্রহ করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.