স্বাস্থ্য

ওজন কমানোর সহজ উপায়-razuaman

আসসালামু আলাইকুম হাই বন্ধুরা আপনারা কেমন আছেন আজকে একটি আর্টিকেল নিয়ে হাজির হয়েছি আপনারা পড়লে বুঝতে পারবেন । না পড়লে মিস করে ফেলবেন ওজন কমানোর সহজ উপায় ।

  • ওজন কমানোর জন্য কি কি খাবার খাবেন না?
  • ওজন কমানোর জন্য কি কি খাবার খাবেন?
  • ওজন কমানোর জন্য কি কি করবেন?
  • ওজন কমানোর জন্য কি কি খাবার খাবেন না?

বর্তমান সময়ে কোটি টাকার প্রশ্ন কিভাবে ওজন কমানো যাবে? আর হ্যাঁ এজন্য অনেকেই বলবে খাবার খাওয়া কমে দেওয়া । এই প্রশ্নটার উত্তর পুরোপুরি ঠিক নয় । খাবার খাওয়া কমিয়ে দিলে আপনার ওজন কমবে না বরঞ্চ আপনি শারীরিক দুর্বলতা দেখা দিবে ।

খাবার খাওয়া আপনাকে অবশ্যই কমাতে হবে । কিন্তু এখানে জানতে হবে আপনাকে কি কি খাবার খাওয়া কমাতে হবে তাই এ সব খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে আজকে আমার এই নিবন্ধ ।

ওজন কমানোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ হলো কি কি খাবারে ওজন বৃদ্ধি পায় সে গুলোকে পরিহার করা । উচ্চ প্রোটিন আছে এরকম খাবারকে পরিহার করুন ।

বিশেষ করে অতিরিক্ত ক্যালরি যুক্ত খাবার আপনার মোটা করতে সাহায্য করে । তাই চর্বি পরিহার করুন । চর্বি কমানোর অন্যতম ভালো উপায় হলো প্রতিদিন বেশি বেশি পানি পান করা। বিশেষ করে কুসুম হালকা গরম পান করলে আপনার শরীরের কিডনি ভালো থাকবে চর্বি কমবে । চিনি খাওয়া একেবারে ছেড়ে দিন।

এক চা চামচে মোট ১৬ শতাংশ ক্যালরি থাকে। তাই চায়ে বা দুধে কখনোই চিনি দিয়ে খাবেন না। শরীরের ক্ষুদার মাত্রা কমিয়ে আনুন । ক্ষুধার মাত্রা কমিয়ে আনলে আপনার শরীরে জমে থাকা চর্বি কমতে কাজ শুরু করবে ।

ওজন কমানোর জন্য কি কি খাবার খাবেন?

গুড ফ্যাটঃ

গুড ফ্যাট বলতে আমি বুঝিয়েছি যেগুলো ফ্যাট আমাদের শরীরের জন্য উপকারী । সেগুলো পরিমিত পরিমাণ খেলে ওজন কমতে কাজ করে । ডিম একটি আদর্শ গুড ফ্যাট, এছাড়াও চিংড়ি ও সামুদ্রিক মাছে মাছকে গুড ফ্যাট হিসেবে ধরে নেওয়া হয় । আপনার খাবার তালিকা অবশ্যই শাকসবজি ও গুড ফ্যাট রাখুন ।

গ্রিন টিঃ

গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিদিন চার কাপ গ্রিন টি পান করলে প্রতি সপ্তাহে অতিরিক্ত ৪০০ ক্যালরি পর্যন্ত ক্ষয় করা সম্ভব। গ্রিন টি-তে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এটি আমাদের দেহের ওজন ঠিক রাখতে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিন গ্রিন টি অবশ্যই পান করুন।

মসলাদার খাবারঃ

শুধু সেদ্ধ খাবার কখনই খাবেন না। মসলা, যেমন—হলুদ, ধনে, জিরে গুঁড়া ইত্যাদি মসলাগুলোকে কখনো খাদ্যতালিকা থেকে বাদ দেবেন না। কারণ, এ মসলাই আপনার ওজন কমাতে সাহায্য করবে।

খিদে পেলে পপকর্ন খানঃ

শুধু সিনেমা হলে গেলেই পপকর্ন খাবেন না। যখনই খিদে পাবে, তখনই পপকর্ন খেতে পারেন। এটি কম ক্যালরিযুক্ত খাবার। তাই মুটিয়ে যাওয়ার ঝুঁকি কম।

ওজন কমানোর জন্য কি কি করবেন?

ঘুমঃ

ওজন কমানোর জন্য ঘুম অবশ্যই একটি ফ্যাক্টর হিসেবে কাজ করে । মনে রাখবেন ঘুম শুধুমাত্র রাতের জন্য । ওজন কমার ক্ষেত্রে অবশ্যই দিনের বেলা ঘুম পরিহার করুন এবং রাতের বেলা প্রপার ঘুমের চেষ্টা করুন ।

নাচঃ

যদি আপনি নৃত্যশিল্পী নাও হন, তাহলে গানের সঙ্গে পায়ে তাল মেলান। ১০ মিনিট ধরে তাল মিলিয়ে দেখুন। এই প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ৫৮ শতাংশ ক্যালরি ঝড়াতে পারবেন।

শারিরিক পরিশ্রমঃ

ওজন কমার জন্য অবশ্যই শারীরিক পরিশ্রম করা প্রয়োজন । আপনার যদি সকালবেলা মর্নিং ওয়াক করতে বের হতে না পারেন । তাহলে অবশ্যই বাসার তাকে টুকি কাজ নিজে করা চেষ্টা করবেন তাতে করে শরীরের রক্ত চলাচল স্বাভাবিক থাকবে । অতিরিক্ত মেদ ঝরে যাবে ।

খাবার আগে পানি খানঃ

খাবার খাওয়ার আগে সব সময় এক গ্লাস পানি খান। এ ছাড়া জাঙ্ক ফুড একেবারেই খাবেন না। যেমন : ক্রিম বিস্কুট, বার্গার ইত্যাদি। যতটা পারবেন বাড়ির তৈরি খাবার খান। এতে শরীর ভালো থাকবে এবং মুটিয়েও যাবেন না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.