সংবাদ

কুমিল্লার নানুয়ার দিঘীরপাড়ের পুজা মণ্ডপে পবিত্র কুরআনুল কারীম অবমাননার।

কুমিল্লার নানুয়ার দিঘীরপাড়ের পুজা মণ্ডপে পবিত্র কুরআনুল কারীম অবমাননার ঘটনা ঘটেছে। কুমিল্লায় হিন্দুদের পূজা মণ্ডপে পবিত্র কুরআন অবমাননার প্রতিবাদ জানিয়েছেন হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ-এর আমীর আল্লামা শাহ মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী ও মহাসচিব আল্লামা নুরুল ইসলাম।

আজ (১৩ অক্টোবর) এক বিবৃতিতে হেফাজত নেতারা বলেন, কুমিল্লার নানুয়া দীঘির পাড়ের পূজা মণ্ডপে পবিত্র কুরআনকে যেভাবে অবমাননা করা হয়েছে, তা কিছুতেই মেনে নেওয়া যায় না। যারা বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে চায়, তাদের বিরুদ্ধে অতিসত্বর কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে।

তারা বলেন, দেশের ইসলাম প্রিয় জনতাকে দুর্বল মনে করবেন না। এদেশের তৌহিদী জনতা নিজেদের ঈমান-আকিদা রক্ষা করতে জানে। এভাবে কুরআনকে অবমাননা করা হবে, আর দেশের ইসলাম প্রিয় জনতা বসে থাকবে, এ হতে পারে না।

আমরা প্রশাসনকে সতর্ক করে বলে দিতে চাই, আপনারা এসব ষড়যন্ত্রকে থামান, দোষীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করুন। না হয় পরিস্থিতি অশান্ত হলে এর দায়ভার সরকারকেই নিতে হবে। এই ঘটনার প্রতিবাদ শুধু কুমিল্লায় নয়, সারা দেশে ছড়িয়ে পড়বে। তখন থামাতে চেষ্টা করলেও থামানো যাবে না।

যে পূজা মণ্ডপে এই ঘটনা ঘটেছে, সে মণ্ডপ অবিলম্বে বন্ধ করুন। যারা এই ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত, তাদের ২৪ ঘণ্টার মধ্যে খুঁজে বের করে গ্রেপ্তার করুন। দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা করুন।

কুমিল্লার মনোহরগঞ্জে বাসের ধাক্কায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার তিন যাত্রী নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় শিশুসহ আরও তিনজন গুরুতর আহত হয়েছেন।

শনিবার সকাল সাড়ে ১০টায় কুমিল্লা-নোয়াখালী আঞ্চলিক মহাসড়কের নাথেরপেটুয়া পুরান বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নাথেরপেটুয়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ জাফর ইকবাল বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

নিহতরা হলেন, মনোহরগঞ্জ উপজেলার খিলা ইউপির মো. রাফি (২৩), চাটখিল উপজেলার মো. ইয়াছিন (৩৫) ও সিএনজি চালক নোয়াখালির মো. শাহাদাত হোসেন (৩৫)।

আরও পড়ুন:

মিরসরাইয়ে কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় ২ মোটরসাইকেল আরোহী নিহত

কুমিল্লা জেলার লাকসাম সার্কেলের সিনিয়র এএসপি মহিতুল ইসলাম জানান, যাত্রীবাহী বাসটি নোয়াখালী থেকে ঢাকা যাচ্ছিল। বেলা পৌনে ১১টার দিকে বাসটি একটি সিএনজিচালিত অটোরিকশাকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে তিন জনের মৃত্যু হয়। এসময় আহত হন অপর তিনজন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন:

উল্লাপাড়ায় কাভার্ডভ্যান-অটোভ্যান মুখোমুখি সংঘর্ষ, নিহত ২ মনোহরগঞ্জ থানার ওসি মাহাবুল করিম জানান, নিহতদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

An incident of desecration of the Holy Quran has taken place in the puja mandapa of Nanuwar Dighirpar in Comilla.

Amir Allama Shah Muhibullah Babungari and Secretary General Allama Nurul Islam of Hifazat-e-Islam Bangladesh have protested against the desecration of Holy Quran at the Hindu Puja Mandap in Comilla.

Hefazat leaders said in a statement today (October 13th) that the desecration of the Holy Quran in a puja mandapa on the banks of Nanua Dighi in Comilla was unacceptable. Strict action must be taken against those who want to destroy the communal harmony of Bangladesh.

They said, don’t think that the Islam-loving people of the country are weak. The Touhidi people of this country know how to defend their faith. In this way, the Qur’an will be insulted, and the country’s Islam-loving people will be sitting, it can not be.

We would like to warn the administration to stop these conspiracies and take strict action against the culprits. Or if the situation is turbulent, the government will have to take the responsibility. Protests against this incident will spread not only in Comilla but all over the country. Even if you try to stop then it cannot be stopped.

In the puja mandapa where this incident took place, close the mandapa immediately. Find and arrest those involved in this incident within 24 hours. Protect the communal harmony of the country.

Leave a Reply

Your email address will not be published.