স্বাস্থ্য

ডেঙ্গু প্রতিরোধে করণীয়-জাতীয় তথ্য বাতায়ন-razuaman

বর্ষাকাল এলেই বাড়ে ডেঙ্গুর উপদ্রব। তাই বছরের অন্য সময়ে চেয়ে এ সময়ে একটু বেশি সতর্ক থাকতে হবে।  এডিস মশার কামড়ে ডেঙ্গুজ্বর হয়ে থাকে। বৃষ্টিপাত, জলাবদ্ধতা ও বাতাসে অত্যধিক আর্দ্রতা এ মশার বংশ বিস্তারে সহায়ক।

https://razuaman.com/

পরিত্যক্ত প্লাস্টিক দ্রব্যাদি, গাড়ির চাকার টায়ার, বাড়ির পানি সংগ্রহের ট্যাংক, ফুলের টব ও ফুলদানিতে জমে থাকা পানিতে এ মশা বংশ বিস্তার করে। এদের ডিম ফোটার জন্য পানির প্রয়োজন হয় বলে শুকনো মৌসুমে এ মশা কমে যায়। তাই বাড়ি ও তার চারপাশ পরিষ্কার রাখতে হবে।

এ বিষয়ে মেডিসিন ও ডায়াবেটিস রোগ বিশেষজ্ঞ কনসালট্যান্ট ডা. ফাহিম আহমেদ রুপম (সিটি স্কিন সেন্টার, শান্তিনগর, ঢাকা) বলেন, এ সময় জ্বর হলেই ডেঙ্গু হয়েছে এমন নয়। মাথাব্যথা, চোখের কোঠরে ব্যথা, মাংসপেশি ও শিরায় ব্যথা এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে লাল দানা বা র্যা শ ওঠা ডেঙ্গুর উপসর্গ

তিনি বলেন, এই জ্বর সাধারণত ২-৫ দিন স্থায়ী হয়। জ্বর সেরে যাওয়ার পর ২-৩ দিনকে ক্রিটিক্যাল পিরিয়ড বলে। কারণ এ সময় রোগীর অভ্যন্তরীণ রক্তক্ষরণ হতে পারে। তিনি আরও বলেন, এই রোগ হলে রক্তক্ষরণ, পেটে প্রচণ্ড ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট দেখা দিলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে। আর কখনই এসপিরিন ও ব্যথানাশক ট্যাবলেট খাওয়া যাবে না।

বর্ষাকালে ডেঙ্গু প্রতিরোধে করণীয় ।

বৃষ্টিপাত, জলাবদ্ধতা ও বাতাসে অত্যধিক আর্দ্রতা এ মশার বংশ বিস্তারে সহায়ক। পরিত্যক্ত প্লাস্টিক দ্রব্যাদি, গাড়ির চাকার টায়ার, বাড়ির পানি সংগ্রহের ট্যাংক, ফুলের টব ও ফুলদানিতে জমে থাকা পানিতে এ মশা বংশ বিস্তার করে। এদের ডিম ফোটার জন্য পানির প্রয়োজন হয় বলে শুকনো মৌসুমে এ মশা কমে যায়।

ডেঙ্গুর উপসর্গ

এই জ্বরের বিশেষ কোনো উপসর্গ নেই। জ্বর, মাথাব্যথা, চোখের কোঠরে ব্যথা, মাংসপেশি ও শিরায় ব্যথা এবং শরীরের বিভিন্ন স্থানে লাল দানা বা র্যাযশ ওঠা ক্লাসিক্যাল ডেঙ্গুজ্বরের লক্ষণ।

প্রতিরোধে যা করবেন

দিনে ঘুমানোর সময় মশারি ব্যবহার বা রিপিলেন্ট স্প্রে ব্যবহার করতে হবে।

চিকিৎসা

পূর্ণ বিশ্রাম ও জ্বর থাকলে দিনে সর্বোচ্চ চারটি প্যারাসিটামল ট্যাবলেট খেতে হবে। এ ছাড়া বেশি করে পানি ও পানীয় এবং স্বাভাবিক খাবার খেতে হবে। জ্বর ভালো হলে তিন দিন প্লাটিলেট কাউন্ট ও হেমাটাক্রিট করিয়ে চিকিৎসকে দেখাতে হবে।

Dengue infestation increases as soon as the rainy season arrives. So be a little more careful at this time of year than at any other time. Aedes mosquito bites cause dengue fever. Rainfall, waterlogging and excessive humidity in the air are conducive to the reproduction of this mosquito.

https://razuaman.com/

The mosquito breeds in discarded plastic products, car tires, home water collection tanks, flower tubs and water in vases. As they need water to hatch their eggs, this mosquito is reduced in the dry season. So the house and its surroundings must be kept clean.

In this regard, the medicine and diabetes specialist consultant. Fahim Ahmed Rupam (City Skin Center, Shantinagar, Dhaka) said that dengue is not the only cause of fever at this time. Symptoms of dengue include headache, pain in the eye sockets, muscle and vein pain, and red rashes or rashes on various parts of the body.

This fever usually lasts for 2-5 days, he said. 2-3 days after the fever is cured is called critical period. Because at this time the patient may have internal bleeding. He further said that in case of this disease, bleeding, severe abdominal pain and shortness of breath should be sought from a doctor immediately. Never take aspirin and painkillers again.

What to do to prevent dengue during the rainy season.

Rainfall, waterlogging and excessive humidity in the air are conducive to the reproduction of this mosquito. The mosquito breeds in discarded plastic products, car tires, home water collection tanks, flower tubs and vases. As they need water to hatch their eggs, this mosquito is reduced in the dry season.

Symptoms of dengue

There are no special symptoms of this fever. Symptoms of classical dengue fever include fever, headache, pain in the eye sockets, muscle and vein pains, and red rashes or rashes on various parts of the body.

Do whatever it takes to prevent

Use mosquito nets or repellent spray while sleeping during the day.

Treatment

If you have full rest and fever, you should take maximum four paracetamol tablets a day. In addition, more water and drinks and normal food should be eaten. If the fever is good, platelet count and hematocrit should be shown to the doctor for three days.

ডেঙ্গু প্রতিরোধে করণীয় কি? কি ভাবে ডেঙ্গু (Dengue) জ্বর প্রতিরোধ করা সম্ভব? ডেঙ্গু প্রতিরধের কর্মসূচী ?

ডেঙ্গু জ্বরের মৃত্যু হার কম হলেও, ডেঙ্গু জ্বরের প্রতিরোধ অতিআবশ্যক, ডেঙ্গু প্রতিরোধে কি কি করা দরকার জেনে নিন, ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণ গুলো জেনে নিন।

ডেঙ্গু কি

ডেঙ্গু হল এক প্রকার মশা বাহিত রোগ। এডিস নামের বিশেষ প্রকারের মশার কামড়ের ফলে মানুষের শরীরে ডেঙ্গু ভাইরাসের সংক্রমন ঘটে। যার ফলে মানুষ ভয়ানক জ্বরে ভুগতে থাকে। এটাকেই ডেঙ্গু বলা হয়।

প্রতি বছর সারা পৃথিবী জুড়ে ৪০০ মিলিয়ন মানুষ ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়, যাদের মধ্যে থেকে প্রায় ১০০ মিলিয়ন মানুষ ডেঙ্গু জ্বরে অসুস্থ হয়ে পড়ে।

তবে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্তের সংখ্যার তুলনায় মৃতের সংখ্যা নেহাত কম! ১০০ মিলিয়ন অসুস্থে মধ্যে থেকে মাত্র ২২ হাজার মানুষের মৃত্যু ঘটে।

ডেঙ্গু রোগ কিভাবে ছড়ায়

ডেঙ্গু রোগ ছড়ানোর প্রধান মাধ্যম হল মশা! এডিস নামের বিশেষ প্রকারের মশার মাধ্যমে মানুষের শরীরে DEN – 1,DEN – 2 এবং DEN – 3 নামের ৩ প্রকারের ভাইরাসের সংক্রমন ঘটে।

এছাড়াও গর্ভবতী মায়ের শরীর থেকে বাচ্চার শরীরে, এবং রক্ত দাতার শরীর থেকে রক্ত গ্রহীতার শরীরেও ডেঙ্গু রোগের সংক্রমন ঘটে।

ডেঙ্গু জ্বরের লক্ষণ গুলো কি কি

ডেঙ্গু জ্বরের কোনো নির্দিষ্ট ভ্যাকসিন নেই। যেহেতু ইহা মশা দ্বারা বাহিত জ্বর, তাই সাধারণ কিছু সতর্কতা অবলম্বন করলে আপনিও ডেঙ্গু জ্বর থেকে রক্ষা পেতে পারেন।

ডেঙ্গু জ্বর প্রতিরোধের জন্য কি কি করতে হবে

  1. ফুল হাতা শার্ট এবং ফুল প্যান্ট পড়ুন।
  2. DEET এর মতো মশা নিরোধক ব্যবহার করুন।
  3. রাতে ঘুমানোর আগে মশারী ব্যবহার করুন।
  4. ঘরের মধ্যে মশা যাতে প্রবেশ করতে পারে, সে জন্য দরজা জানালা যথা সম্ভব বন্ধ রাখুন।
  5. যে সব জায়গায় জল জমে রয়েছে, সে সব জায়গা গুলো খালি করার চেষ্টা করুন।
  6. পুকুর বা ডোবা তে তেলাপিয়া এবং গাপ্পি মাছ ছেড়ে দিন, এই সব মাছ মশার ডিম খেয়ে নিয়ে মশার বংশ বিস্তারে ব্যাঘাতে সক্ষম।
  7. সন্ধ্যা বেলা এবং ভোর বেলায় বনে জঙ্গলে অথবা ডোবার ধারে যাবেন না। কারণ সন্ধ্যা এবং ভোর বেলায় সব থেকে বেশি মশার আনাগোনা দেখা যায়।

আরো দেখুন:-

http://razuaman.com/

Leave a Reply

Your email address will not be published.