স্বাস্থ্য

বিয়ের পর মেয়েরা মোটা হয় কেন কারণ কি !

কারণ বিয়ের পরই নাকি মেয়েরা মোটা হয়ে যায় একথা দীর্ঘদিন ধরেই বহুল প্রচলিত। এর পিছনের আসল কারণটা নিয়ে আজও ধোঁয়াশা। অনেকেই বলেন নিয়মিত সেক্স করলেই নাকি ওজন বাড়ে। সত্যিই কি তাই, কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা বিশেষজ্ঞদের মতে, বিয়ের পরে অনেকেই মোটা হয়ে যায় একথা সত্য। কারণ হরমোনাল পরিবর্তনের জন্য এমনটা হয়ে থাকে। বিয়ের পর মেয়েদের শরীর ভারী হয়ে যায়। বিশেষ করে কোমর, থাই, বক্ষদেশ, নিতম্বের আকার পরিবর্তন হয়ে যায়।

বিয়ের পর প্রথম ছয় মাসে কনে প্রায় পাঁচ পাউন্ড লাভ করে। পর্যবেক্ষণে দেখা যায়, যারা বিয়ের সময় সুন্দর দেখতে খুব দ্রুত ওজন কমায়, তারা বিয়ের পর দ্রুত ওজন বাড়ে। প্রায়ই দেখা যায় যে মেয়েরা বিয়ের সময় কম বয়সী দেখতে চায়। এজন্যই বিয়ের কয়েক মাস আগে তারা কঠোর ডায়েটে চলে যান। এমনকি দেখা যায় যে পরিবারের সদস্যরা এমনকি তাদের বাগদত্তাও তাদের ওজন কমানোর কথা বলে।

তাদের মধ্যে প্রায় 20 পাউন্ড (9 কেজি) হারানোর পরিকল্পনা নিয়ে তাদের ডায়েট শুরু হয়েছিল। এই ডায়েটের ফলে অনেকের ওজন কমে যায়, কিন্তু বেশিরভাগ ওজনের খুব বেশি পরিবর্তন হয় না। বিয়ের আগে তাদের খাওয়া কমানোর ফলে, যখন তারা বিয়ের পর অনিয়ন্ত্রিত খাদ্যাভ্যাসে ফিরে আসে, প্রথম ছয় মাসের মধ্যে তারা দ্রুত ওজন বাড়ায়।

সঠিক ডায়েট অনুসরণ না করা:

অনেক মেয়েরা বিয়ের আগে একটি আকর্ষণীয় ফিগার রাখার জন্য কঠোর ডায়েট বা খাদ্যাভ্যাস অনুসরণ করে। চর্বিযুক্ত খাবার, কার্বোহাইড্রেটযুক্ত খাবার, ফাস্ট ফুড সবই তাদের ‘না’ থাকে। ওজন নিয়ন্ত্রণের জন্য সবসময় একটি তাগিদ থাকে। যাইহোক, অনেকে বিয়ের পর আর এই ডায়েট মেনে চলতে পারে না।

ভাজা খাবার এবং তৈলাক্ত খাবার:

বিয়ের পর ভাজা খাবার এবং তৈলাক্ত খাবার বেশি খাওয়া হয় যখন বিভিন্ন পার্টিতে বা বাড়িতে অতিথিরা আসেন। এই কারণে ওজন দ্রুত বৃদ্ধি পায়। আবার অনেক মেয়েরা নতুন রেসিপি রান্না করে পরিবারের সদস্যদের খেতে দেয়। এটিও ওজন বাড়ার একটি বড় কারণ। নি doubtসন্দেহে পরিবারের সবাই ভালো খাবার খেতে পছন্দ করে, কিন্তু তার মানে এই নয় যে আপনাকে সব স্বাদ নিতে হবে!

 নিজের জন্য সময় নেই:

বিয়ের পর, নতুন সম্পর্ক, নতুন মানুষ, সব কিছুর ভিড়ে নিজের জন্য সময় বের করা খুব কঠিন হয়ে পড়ে। তারপর গুরুত্ব বদলায় বা অগ্রাধিকার বদলায়, তাই ফোকাস আর নিজের দিকে থাকে না, ব্যায়াম তো দূরের কথা। বিয়ের পর মোটা হওয়া এর একটি বড় কারণ।

অতীতে, আপনি ব্যায়াম বা স্বাস্থ্যকর ডায়েটের জন্য সময় নির্ধারণ করতে পারেন, তবে বিয়ের পরে এটি আর হয় না। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে সময় কাটানোর বা গৃহস্থালির কাজকর্মের যত্ন নেওয়ার জন্য নিজের কাছে আর সময় নেই। মোটা হওয়ার ঝুঁকি সম্পর্কে চিন্তা করুন তাই নিজের জন্য সময় দিন। খাওয়ার উপর নিয়ন্ত্রণ আনার চেষ্টা করুন।

 বাইরের খাবার:

বিয়ের পর মেয়েদের ওজন বাড়ার আরেকটি কারণ হল রান্না করা এবং খাবার খাওয়া বাদ দেওয়া। অনেকেই বিয়ের পর রান্নায় এতটা ভালো না, তখন বাইরের খাবার নির্ভরতা। বাইরের খাবার বা হোটেলের খাবারে প্রচুর তেল দেওয়া হয়। এই অস্বাস্থ্যকর খাবারগুলো ওজন বাড়ায়।

গর্ভাবস্থার জন্য:

গর্ভাবস্থার কারণে বেশিরভাগ মহিলাদের ওজন বৃদ্ধি পায়। গবেষণায় দেখা গেছে যে এই সময়ে প্রায় 10 থেকে 12 কেজি ওজন বৃদ্ধি পায়।

জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি:

জন্মনিয়ন্ত্রণ বড়ি যেমন বড়ি বা ইনজেকশন বিয়ের পর মেয়েরা মোটা হয়ে যায়।

 নিজের সাথে বেশি সময় কাটাতে চাওয়া:

অনেক স্বামী আছেন যারা তাদের স্ত্রীদের সাথে দীর্ঘ সময় থাকতে পছন্দ করেন। যার জন্য স্ত্রী হয়তো আর ব্যায়াম করবেন না। এটা অবশ্যই পারস্পরিক বোঝাপড়ার জন্য ভাল। কিন্তু স্বাস্থ্যকেও গুরুত্ব দিতে হবে। তাই আপনার স্বামীকে আপনার সাথে ব্যায়াম করতে উৎসাহিত করুন। অথবা আপনি একসাথে একটি জিমে যেতে পারেন।

অলসতা:

অলস মানুষ শুধু খায় এবং ঘুমায়। শরীরকে ফিট এবং কার্যকরী রাখার জন্য আর কাজ নেই। বিয়ের পর অনেকেই ব্যস্ত হয়ে পড়ে এবং অনেকে নিজের প্রতি এতটা অবহেলা দেখায় যে তারা তাদের শরীরের যত্ন নেয় না। এই অলসতা বিয়ের পর ওজন বাড়ার একটি বড় কারণ।

আরো পড়ুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.