স্মার্টফোন

ভারতের বাজারে সেরা ১০টি ফিচার ফোন খোঁজ-Best Feature Phone in India

স্মার্টফোন যা কেবলমাত্র কাজ করে এবং একটি খারাপ স্মার্টফোন যা প্রচুর বাগ সহ আসে, এইগুলি আপনার দিন কে ভাল বা খারাপ করতে পারে।  এবং বাজারে উপস্থিত বেশিরভাগ স্মার্টফোন একটি ভাল ফিচার অফার করে, এর পাশাপাশি সেরা ফোনগুলি প্রচুর পরিমাণে কম্পিউটিং শক্তি এবং অনায়াসে ব্যবহারযোগ্যতার প্রস্তাব দিয়ে হার্ডওয়্যার এবং সফ্টওয়্যারগুলির মধ্যে সঠিক ভারসাম্য সরবরাহ করে।
ভারতের বাজারে উপলব্ধ সেরা ১০টি ফিচার ফোনের খোঁজ রয়েছে এই প্রতিবেদনে ।

পনি যদি এমন ধরনের কোনো ফিচার ফোন খুঁজে থাকেন তাহলে এই প্রতিবেদনেটি অবশ্যই পড়ুন। কারণ আজ আমরা ভারতের বাজারে উপলব্ধ সেরা ১০টি ফিচার ফোনের খোঁজ দেব আপনাকে। এগুলি কিনতে আপনাকে ৩,০০০ টাকার কম খরচ করতে হবে।

LAVA A3: ১,১৩১ টাকা

LAVA A3: ১,১৩১ টাকা

লাভা এ৩ ফোনে আছে ১.৮ ইঞ্চির (১২৮x১৬০ পিক্সেল) ডিসপ্লে। থাকছে ২৪ এমবি র‍্যাম এবং ২৪ এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। যা মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ৩২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ছবি তোলার জন্য এতে পাওয়া যাবে VGA ক্যামেরা। আর, দীর্ঘক্ষণ যাতে ডিভাইসটি সক্রিয় থাকে তার জন্য ১,৭৫০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে।  এই ফোনের সাথে ১ বছরের ওয়ারেন্টি পাওয়া যাবে।Nokia 110 4G

Nokia 110 4G: ২,৭৯৯ টাকা

নোকিয়া ১১০ ৪জি ফোনে একটি ১.৮০ ইঞ্চির (১২০x১৬০ পিক্সেল) ডিসপ্লে আছে।  ফোনে ডিফল্ট রূপে ১২৮ এমবি র‍্যাম এবং ৪৮ এমবি স্টোরেজ পাওয়া যাবে। তবে মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এটির স্টোরেজ ৩২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো সম্ভব।  এই ফোনে থাকছে ইউনিসক টি০০ প্রসেসর। এটি সিরিজ ৩০ প্লাস ওএস দ্বারা চালিত। পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ফোনে ১,০২০ এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে।Micromax X512

Micromax X512: ১,০৮৪ টাকা

৫৬ এমবি র‍্যাম এবং ২৪ এমবি স্টোরেজ যুক্ত মাইক্রোম্যাক্স এক্স৫১২ ফোনে ১.৭৭ ইঞ্চির (২৪০x৩২০ পিক্সেল) ডিসপ্লে দেখা যাবে। ছবি তোলার জন্য ফোনের ব্যাক প্যানেলে ০.৩ মেগাপিক্সেলের একটি ক্যামেরা থাকছে। এতে ১,৭৫০ এমএএইচ পাওয়ারের লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি আছে। মাইক্রোম্যাক্স তাদের এই ফিচার ফোনের সাথে ১ বছরের ওয়ারেন্টি দিচ্ছে।

Itel IT2163

Itel IT2163: ৮২৫

এসসি৬৫৩১ই প্রসেসর চালিত ইন্টেল আইটি২১৬৩ ফোনে ১.৮ ইঞ্চির ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এতে ৪ এমবি র‍্যাম এবং ৪ এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ পাওয়া যাবে। যদিও, মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ফোনের স্টোরেজ ক্যাপাসিটিকে ৩২ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। এতে ১,০০০ এমএএইচ পাওয়ারের লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি আছে। এই স্ট্যান্ডার্ড কীপ্যাড ফোনের

 সাথে সংস্থাটি ১ বছরের ওয়ারেন্টি এবং অ্যাক্সেসরিজের ক্ষেত্রে ৬ মাসের ওয়ারেন্টি দিচ্ছে।

Samsung Guru 1200

Samsung Guru 1200: ১,৩১০ টাকা

২০৮ মেগাহার্টজ ওয়ান-কোর প্রসেসর চালিত স্যামসাং গুরু ১২০০ ফোনে ১.৫২ ইঞ্চির (১২৮x১২৮ পিক্সেল) TFT ডিসপ্লে দেখা যাবে। এতে ডিফল্ট রূপে ৪ এমবি র‍্যাম এবং ৮ এমবি স্টোরেজ পাওয়া যাবে। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ফোনের স্টোরেজ বাড়ানো যাবে (১৬ জিবি পর্যন্ত)। ফোনে ৮০০ এমএএইচ পাওয়ারের রিমুভেবল ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে।

Micromax X816

Micromax X816: ১,৪৫৪ টাকা

মাইক্রোম্যাক্স এক্স৮১৬ ফোনে ২.৮ ইঞ্চির (২৪০x৩২০ পিক্সেল) ডিসপ্লে আছে। এতে ৩২ এমবি র‍্যাম এবং ৩২ এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ পেয়ে যাবেন ইউজাররা। যদিও মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ফোনের স্টোরেজ ৮ জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে। ছবি তোলার জন্য এতে ০.৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা রয়েছে। এই ফোনে ১,৭৫০ এমএএইচ পাওয়ারের ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে।Lava Pulse:

Lava Pulse: ১,৪৪৯ টাকা

৩২ এমবি র‍্যাম এবং ২৪ এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ যুক্ত লাভার এই ফোনে রয়েছে একটি ২.৪ ইঞ্চির (২৪০x৩২০ পিক্সেল) ডিসপ্লে। এতে ওয়ান কোর প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। মাইক্রোএসডি কার্ড ব্যবহার করে স্টোরেজ বাড়ানো যাবে (৩২ জিবি পর্যন্ত)। এছাড়া এতে ০.৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা এবং ১,৭৫০ এমএএইচ ক্যাপাসিটির ব্যাটারি পাওয়া যাবে।

Nokia 105

Nokia 105: ১,৩৪৯ টাকা

নোকিয়া ১০৫ ফোনের ফিচারের কথা বললে, এতে ১.৮০ ইঞ্চির (২৪০x৩২০ পিক্সেল) ডিসপ্লে, ৪ এমবি র‍্যাম, ৪ এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ, মাইক্রোএসডি কার্ড সাপোর্ট (৩২ জিবি পর্যন্ত) এবং ৮০০ এমএএইচ পাওয়ারের ব্যাটারি আছে। এটি সিরিজ ৩০ অপারেটিং সিস্টেম দ্বারা চালিত।Lava Gem:

Lava Gem: ১,৫৭৭ টাকা

লাভা জেম ফোনে ২.৮ ইঞ্চির (২৪০x৩২০ পিক্সেল) ডিসপ্লে রয়েছে। এতে ডিফল্ট রূপে ৪ এমবি র‍্যাম এবং ৪ এমবি ইন্টারনাল স্টোরেজ পেয়ে যাবেন ইউজাররা। থাকছে একটি মাইক্রোএসডি কার্ড স্লট (৩২ জিবি)। ছবি তোলার জন্য ০.৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। এতে ১,৭৫০ এমএএইচ পাওয়ারের ব্যাটারি আছে।

KARBONN K19 Rock: ৯১৮ টাকা

কার্বন কে১৯ রক ফোনে ১.৮ ইঞ্চির (২৪০x৩২০ পিক্সেল) ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এতে ৩২ এমবি র‍্যাম এবং ৩২ এমবি অনবোর্ড স্টোরেজ পাওয়া যাবে। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ইউজাররা ফোনের স্টোরেজ ক্যাপাসিটিকে ১৬ জিবি পর্যন্ত বর্ধিত করতে পারবেন। এতে ০.৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। এই ফিচার ফোনের ব্যাটারি ক্যাপাসিটি ১,৭৫০ এমএএইচ এবং এর সাথে সংস্থার তরফ থেকে ১ বছরের ওয়ারেন্টি দেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.