তথ্য-প্রযুক্তি

কোন কোম্পানির রাউটার ভাল: ভালো রাউটার চেনার উপায় ..? ASUS RT-N12+

এটা নির্ভর করে থাকে আপনি রাউটার কি কাজে ব্যবহার করবেন? এই ভিত্তিতে আমরা ৫ টি ভাগে ভাগ করেছি। আপনার নেটওয়ার্ক যে কোন জায়গায় নিয়ন্ত্রণ করুন

আপনার ক্রমবর্ধমান মোবাইল-সক্ষম জীবনে, একটি অ্যাপের মাধ্যমে আপনার নেটওয়ার্কের উপর নিয়ন্ত্রণ থাকা আগের চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। নতুন ASUS রাউটার অ্যাপটি গ্রাউন্ড-আপ থেকে অন্তর্নিহিত এবং শক্তিশালী উভয়ই তৈরি করা হয়েছে, যা আপনাকে আপনার রাউটার সেটআপ করতে, নেটওয়ার্ক ট্র্যাফিক পরিচালনা করতে, সংযোগের সমস্যা নির্ণয় করতে এবং এমনকি ফার্মওয়্যার আপডেট করার অনুমতি দেয়, সবই একটি পিসি বুট করার প্রয়োজন ছাড়াই।

১।  এন্ট্রি লেভেলঃ   ASUS RT-N12+..

ভালো রাউটার চেনার উপায়

একদম মাঝারি আকারের বাসার জন্য এই রাউটারটি পার্ফেক্ট। 802.11n সাপোর্টেড এবং এর ডাটা রেট প্রায় ৩০০ এমবিপিএস এর মত। এছাড়া এতে MIMO টেকনলজি আছে।

সাধারন হোম ইউজ যেখানে টুকটাক ব্রাউসিং আর টুকটাক ডাউনলোডিং করা হয় সেক্ষেত্রে এই রাউটারটি যথেস্ট ভালো মানের একটি রাউটার।

২।   মিড লেভেলঃ   ASUS RT-AC1300UHP..

মোটামুটি বড় মানের বাসার জন্য এই রাউটারটি অনেকটাই পার্ফেক্ট বলা চলে। ৪ টি এন্টেনার রাউটারটি ৫ গিগাহার্জ ব্যান্ড সাপোর্টেড এবং এর সাথেই MU-MIMO ফিচার সাপোর্টেড।  802.11a থেকে আধুনিক 802.11ac পর্যন্ত সাপোর্ট করে এই রাউটারটি। এছাড়া প্যারেন্টাল কন্ট্রোল ফিচার আছেই। Asus ROG Rapture GT-AC2900 WiFi Gaming Router

৩।  হাই-এন্ড লেভেল(গেমিং):..

আপনার বাসা যদি যথেস্ট বড় হয়ে থাকে এবং আপনি যদি একজন গেমার হয়ে থাকেন তাহলে ROG Rapture GT-AC2900 একটি অন্যরকম রাউটার। যেটি গেমের লেটেনসি, পিং সমস্যা, নেটওয়ার্ক বটলনেক এসব কমিয়ে আপনাকে দিবে গেম উপভোগ করার অসাধারন অভিজ্ঞতা। এই রাউটারটি ডাটা রেট 802.11a থেকে আধুনিক 802.11ac পর্যন্ত সাপোর্ট করে এই রাউটারটি। একটি ইন্টার্নাল এন্টেনা এবং বাকি ৩ টি এক্সটার্নাল এন্টেনা সাপোর্ট করে এই রাউটার। MU-MIMO টেকনলজিতে এটি সর্বোচ্চ ৫ গিগাহার্জ পর্যন্ত ব্যান্ড সাপোর্ট করে থাকে।

এছাড়া এটি Nvidia Geforce Now রেকমেন্ডেড রাউটার। গেমিং  এর ক্ষেত্রে রাউটারটি গেমের ডাটা প্যাকেটকে কম্পিউটার হতে গেম সার্ভারে পাঠানোর জন্য অপটিমাইজ করে থাকে। এতে করে গেমে নেটওয়ার্ক ল্যাগ, পিং লস সমস্যা এবং ল্যেটেন্সি সমস্যা হবে আরো কম। এসবের সাথে আসুস দিচ্ছে লাইফটাইম আরটিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্স পাওয়ার্ড AiProtection Pro সুবিধা যা ইন্টারনেট সম্পর্কিত ম্যালওয়্যার বা ক্ষতিকর আক্রমণ থেকে কম্পিউটার এবং অন্যান্য ডিভাইসকে রক্ষা করবে। এ রাউটারটি AiMesh সুবিধা সমর্থন করে থাকে।

Asus RT-AX88U Dual Band WiFi 6 802.11ax Router

৪। পরবর্তী প্রজন্মের এবং হাই এন্ড লেভেল(ননগেমিং+গেমিং):

এই সেগমেন্টে ২ টি রাউটার আছে। আগেই বলে নেয়া ভালো এই রাউটারগুলো যথেস্ট বড় আকারের বাসা অথবা অফিস কভারেজ দিতে পারবে এবং এই দুটি রাউটারই আসুসের হাই-এন্ড রাউটার। এছাড়া এই রাউটারগুলো ফিউচারপ্রুফ মানে ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেই রাউটার প্রস্তুত করা।

আসুসের RT-AX88U হল ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াইফাই ৬ (802.11ax)  সমর্থিত যাতে MU-MIMO  এবং OFDMA টেকললজি সাপোর্ট করে থাকে। তাই বলতেই হয় এটি নেক্সট জেন ওয়াইফাই স্ট্যান্ডার্ড সাপোর্ট করে থাকে। ৬০০০এমবিপিএস ওয়াফাই স্পিড এটি নিয়ন্ত্রন করতে সক্ষম যতই ব্যস্ত হোক না কেন।  এর ৪ টি এন্টেনা এবন ৮ টি ল্যান পোর্ট দিবে সর্বোচ্চ মানের ইন্টারনেট গতি নিশ্চয়তা। এছাড়া RT-AX88U  রাউটারটি ভয়েস কমান্ড দিয়ে কন্ট্রোল করা সম্ভব এমাজন আলেক্সার সাথে। এটি শধুমাত্র রাউটার নয় বরং এটি স্মার্ট রাউটার।

অন্যদিকে, ROG Rapture GT-AX11000 ট্রাই ব্যান্ড ওয়াইফাই গেমিং রাউটার। ওয়ার্ল্ডের প্রথম ১০ গিগাবিট ওয়াইফাই গেমিং রাউটার যেটি ১.৮ গিগাহার্জ কোয়াড কোর সিপিউ সমর্থিত এবং ২.৫ জি বেস টি পোর্ট, DFS ব্যান্ড, WTFast গেমিং এ সার্ভারে ভাল কানেকশনের জন্য, AiMesh মেশ রাউটিং সিস্টেমের জন্য, AiProtection নেটওয়ার্কের সিকিউরিটির জন্য।

উদ্ভাবনের দিক থেকে দুটি রাউটার বর্তমান প্রজন্মের থেকে অনেকটা এগিয়ে এবং ক্ষমতায় এ দুটি রাউটার যথেস্ট শক্তিশালী।

asus-blue-cave-ac2600

৫। মেশ রাউটিং সিস্টেমের জন্যঃ এই অংশেও দুটি রাউটার আছে, একটি হলো ASUS RT-AC68U এবং অন্যটি একটি ফ্যাশনেবল রাউটার ASUS Blue Cave

ASUS RT-AC68U রাউটারটি ডুয়াল ব্যান্ড এয়ারমেশ সাপোর্টেড পৃথিবীর ফাস্টেস্ট রাউটার যেটি 802.11n এর তুলনায় তিনগুন বেশি এবং এর ডাটা স্পিড রেট ১৯০০ এমবিপিএস। এতে দেয়া আছে ডুয়াল কোর প্রসেসর যেটি ফাস্ট এবং রেস্পন্সিভ ওয়াইফাই এবং ল্যান পার্ফামেন্স দিয়ে থাকবে। এছাড়া এটি মেশ রাউটিং সিস্টেম সমর্থিত।

অন্যদিকে, ASUS Blue Cave AC2600 ডুয়াল ব্যান্ড ওয়াইফাই রাউটার যেটি AiMesh ওয়াইফাই সিস্টেম সাপোর্ট করে থাকে এবং এসবের পাশাপাশি এটি এমাজন আলেক্সা সাপোর্ট করে যাতে করে এটি স্মার্ট ডিভাইস হিসেবে কাজ করতে সক্ষম। স্মার্ট হোম ডিভাইসের ক্ষেত্রে এই ধরনের ইউনিক ডিসাইনের রাউটার যথেস্ট কাজের। এছাড়া ১ বছরের ট্রেন্ড মাইক্রো এন্টিভাইরাস সাপোর্ট রয়েছে। এই স্মার্ট রাউটারটি অন্য রাউটারের সাথে কানেক্ট করে মেশ রাউটার সিস্টেম তৈরি করতে সক্ষম যাতে করে ওয়াইফাই রেঞ্জ নিয়ে আপনাকে আর ভাবতে হবে না। এছাড়া ফোনের এপ দিয়ে কন্ট্রোল করার সুবিধা রয়েছে এই রাউটারটিতে।

উপরোক্ত প্রায় সব রাউটারে নিজেস্ব AiProtection সুবিধা রয়েছে যেটি রাউটার এবং রাউটারে কানেক্টেড ডিভাইসগুলো ইন্টারনেট ম্যালওয়্যার বা হ্যাকারের আক্রমণ থেকে দূরে রাখতে সক্ষম।

এই রাউটারগুলোতে সাইবার সিকিউরিটি সিস্টেম থাকাতে রাউটার ব্যবহারকারী নিরাপদে ইন্টারনেট ব্রাউসিং এক্সপেরিএন্স পেতে পারে।

পছন্দ আপনার, আপনি কোন রাউটারটি নিতে চান। এর বাইরেও আরো অনেক রাউটার রয়েছে তা নিয়ে অন্যসময় বিস্তারিত আলোচনা করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.