চিকিৎসা

মেয়েদের তলপেটের ব্যথা কেন হয় এবং কী করবেন কি টেবলেট খাবেন।

মেয়েদের তলপেটের ব্যথা কেন হয় এবং কী করবেন

তলপেটে ব্যথা (Lower Abdominal Pain) মেয়েদের একটি পরিচিত সমস্যা। তবে এটা যে সব সময়ই মেয়েদের সমস্যা, তা নয়। কেননা জরায়ু, ডিম্বাশয় ছাড়াও এখানে আছে মূত্রথলি, বৃহদন্ত্রের কিছু অংশ, অ্যাপেনডিক্স। তলপেটের ব্যথা কখনো কখনো মামুলি ব্যাপার, আবার কখনো গুরুতর। তাই জেনেনিন তলপেটের ব্যথা কেন হয়, তলপেটের ব্যথা হলে কী করবেন ও তলপেট ব্যথার ট্যাবলেট বা ওষুধের নাম।

তলপেটে ব্যথা করার কারণ:
*মাসিকের সময় তলপেটে ব্যথা হওয়া স্বাভাবিক, ১০ জনে ১ জন নারীর এটা তীব্র হতে পারে। জরায়ুতে টিউমার, ফাইব্রয়েড বা এন্ডোমেট্রোসিস থাকলে ব্যথা হবে। ডিম্বাশয় থেকে ডিম্বাণু নির্গত হওয়ার সময় কারও কারও ব্যথা অনুভূত হয়।

*মেয়েদের প্রস্রাবে সংক্রমণ খুবই হয়। আর এতে তলপেটে ব্যথা হতে পারে। পাশাপাশি প্রস্রাবে জ্বালা, প্রস্রাবের সময় ব্যথা, জ্বর জ্বর ভাব থাকতে পারে।

* জরায়ু ও আশপাশে সংক্রমণ হলে তাকে পেলভিক ইনফ্লামাটরি ডিজিজ বলে। এতে তলপেটে ব্যথা, জ্বর, প্রস্রাব নির্গত হওয়া ইত্যাদি লক্ষণ দেখা যায়। অনেক সময় এ সংক্রমণ দীর্ঘমেয়াদি হতে পারে।

* অ্যাপেনডিসাইটিসের ব্যথা প্রথমে শুরু হয় নাভির চার দিকে, তারপর তা স্থায়ী হয় তলপেটের ডান দিকে। সঙ্গে বমিও হতে পারে।

*অনেক সময় ভ্রূণ জরায়ুতে স্থাপিত না হয়ে ডিম্বনালিতে স্থাপিত হয় এবং ডিম্বনালি ফেটে যায়। এটি একটি জরুরি অবস্থা। পেটে প্রচণ্ড ব্যথার পাশাপাশি পুরো তলপেটে রক্তক্ষরণের কারণে রক্তচাপ কমে যেতে পারে। কোনো কারণে ডিম্বাশয়ে রক্তপাত হলে বা সিস্ট বেঁকে গেলেও ব্যথা হয়।

এছাড়া কোষ্ঠকাঠিন্য, আইবিএস, মূত্রথলিতে পাথর ইত্যাদি নানা কারণে তলপেটে ব্যথা হতে পারে।

*তলপেটের দুই পাশে ব্যথার কারণ:
অ্যাপেন্ডিসাইটিস: সচরাচর পেটের ডানপাশে ব্যথা হওয়ার কারণ এই ‘অ্যাপেন্ডিসাইটিস’। অ্যাপেন্ডিক্স’ হল আঙ্গুলের মতো আকৃতির একটি থলে যা পেটের নিচের দিকের ডানপাশ থেকে শুরু হওয়া বৃহদান্ত্রের সঙ্গে যুক্ত থাকে। আর এই ‘অ্যাপেন্ডিক্স’য়ের প্রদাহকেই বলা হয় ‘অ্যাপেন্ডিসাইটিস’। এই প্রদাহের সুত্রপাত হয় নাভির আশপাশে এবং ছড়িয়ে পড়তে থাকে পেটের ডান পাশের নিচের দিকে।

এই প্রদাহের কারণে বসা ও শোওয়া অবস্থায় প্রচণ্ড অস্বস্তি দেখা দেয়। আর ব্যথা শুরু হয়ে যেতে পারে কোনো কারণ ছাড়াই। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে ‘অ্যাপেন্ডিক্স’ অপসারণ করাই এই সমস্যার একমাত্র সমাধান। আর তা-না করে ব্যথাকে উপেক্ষা করলে একসময় ‘অ্যাপেন্ডিক্স’ ফেটে যেতে পারে।

পেশি ব্যথা ও হার্নিয়া: প্রচণ্ড ভারী ব্যায়াম থেকেও পেটের ডানপাশে তীক্ষ্ণ ব্যথা দেখা দিতে পারে। মানুষ জোরে দৌড়ালে পেটের ‘ডায়াফ্রাম’ স্বাভাবিকের তুলনায় বেশি নড়াচড়া করে, আর সেখান থেকেই ব্যথার সুত্রপাত। এছাড়াও পেশির অবসাদগ্রস্ততা, পানিশূন্যতা, ‘ইলেক্ট্রোলাইট’য়ের ভারসাম্যহীনতা ইত্যাদির কারণে পেশিতে টান পড়তে পারে এবং পেটব্যথা দেখা দিতে পারে। এই পরিস্থিতি এড়াতে প্রতিবার ব্যায়ামের আগে অবশ্যই ‘ওয়ার্ম-আপ’ করতে হবে এবং ব্যায়াম করতে হবে পরিমাণ মতো।

আবার ব্যায়ামাগারে ভারী ওজন তোলা থেকে দেখা দিতে পারে ‘হার্নিয়া’। এই রোগে শরীরের অভ্যন্তরীন একটি অঙ্গ যে পেশির সাহায্যে শরীরের সঙ্গে যুক্ত থাকে সেই পেশির উৎপত্তিস্থল দিয়ে বাইরের দিকে বেরিয়ে আসে। তাই ভারী ব্যায়াম করার সময় বাড়তি সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে সবসময়।

বৃক্কে পাথর: তলপেটের দুই পাশেই আছে বৃ্ক্ক। তাই বৃক্কে পাথর হলে পেটের ডানপাশে ব্যথা হবে। এছাড়াও একই কারণে ব্যথা হতে পারে পিঠের নিচের দিকে ও ‘গ্রোইন’ বা কুঁচকিতে। বৃক্কের এই পাথর মুত্রনালীর দিকে যেতে থাকলে ব্যথারও স্থান পরিবর্তন হয়। এসময় প্রস্রাবের সঙ্গে রক্ত আসতে পারে এবং বমিভাব হতে পারে। বৃক্কের পাথর ছোট হলে ওষুধের সাহায্যেই তা প্রস্রাবের সঙ্গে বের করে দেওয়া যায়। অন্যথায় বেছে নিতে হবে অস্ত্রোপচার।

*পেটব্যথা কমানোর উপায়
আদা বা আদা চা: প্রচীনকাল থেকেই ব্যথা কমাতে এবং বমি ভাব দূর করতে আদাকে প্রকৃতিক ওষুধ হিসেবে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এতে অ্যান্টিইনফ্লেমেটরি ও প্রদাহ বিরোধী গুণ থাকায় এটি ব্যথা কমাতে সহায়তা করে। তাই প্রকৃতিকভাবে পেটের ব্যথা কমাতে আদা কুঁচি করে অথবা চিবিয়ে খেতে পারেন।

কলা ও আপেল: কলা ও আপেলে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার থাকে। আর এ কারণে এগুলো পেটের ব্যথা কমাতে সহায়তা করতে পারে। এছাড়া এটি বমি ভাব ও ডায়রিয়াতেও উপকারী হিসেবে কাজ করে।

টোস্ট: টোস্ট বিস্কুট বা ওভারকুক করা রুটি পেট ব্যথা কমাতে সহায়তা করতে পারে। এতে তেমন কোনো তেল থাকে না। আর এ ছাড়া একটু পোড়া রুটি বা টোস্ট বমি ভাব কমাতেও সহায়তা করে।

পুদিনা পাতা: পেটের ব্যথা ও বমি ভাব কমাতে এবং পেট খারাপের জন্য অনেক সহায়ক একটি প্রাকৃতিক সমাধাণ হচ্ছে পুদিনা পাতা। এটির প্রকৃতিক ব্যথানাশক বৈশিষ্ট রয়েছে। তাই পেট ব্যথা কমানোর প্রাকৃতিক সমাধাণ হিসেবে চায়ের সঙ্গে বা চিবিয়ে পুদিনা পাতা খেতে পারেন।

অ্যাপেল সিডার ভিনেগার: অ্যাপেল সিডার ভিনেগারে অ্যাসিড স্টার্চ থাকায় তা হজম করতে সাহায্য করে অন্ত্রের ব্যকটেরিয়াকে সুস্থ রাখে। আর এ কারণে এটি পেটের ব্যথা কমাতে সহায়তা করতে পারে। এর জন্য এক কাপ পানিতে এক চামুচ অ্যাপল সিডার ভিনেগার ও এক চামুচ মধু মিশিয়ে পান করলে উপকার পাবেন।

*তলপেটে ব্যথা হলে কী করবেন
মেয়েদের তলপেটে তীব্র ব্যথাকে অবহেলা করা উচিত নয়। ব্যথার তীব্রতা ও স্থায়িত্ব বাড়তে থাকলে দ্রুত চিকিৎসকের পরামর্শ নিন। হঠাৎ তীব্র ব্যথা হলে শেষ মাসিকের তারিখের সঙ্গে মিলিয়ে দেখুন। ডিম্বনালিতে ভ্রূণ বা গর্ভপাতের ব্যথা কি না, সচেতন হোন। প্রচুর পানি পান করবেন। প্রস্রাব আটকে রাখবেন না। রাতে ঘুমানোর আগে প্রস্রাব করে মূত্রথলি খালি করবেন। ব্যক্তিগত পরিচ্ছন্নতা জরুরি।

তলপেট ব্যথার ট্যাবলেট বা ওষুধের নাম:
মাসিকের সময় প্রচণ্ড তলপেট ব্যথা হলে প্যাসিফিক ফার্মা লিমিটেডের HPR-DS Tablet-টি (500 mg) খেতে পারেন। তার সাথে গ্যাসের ট্যাবলেট খেতে হবে।

আরও দেখুন

রংপুরের  প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের নাম ও সিরিয়ালের নম্বার। razuaman.com

প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়ার আগে কিছু গুরুত্বপূর্ণ টিপস শেয়ার করবো। এই টিপস গুলো জানলে আপনি সঠিক ভাবে চিকিৎসা কোর্গতে পারবেন। কেননা আমাদের দেশে পুরুষদের তুলনায় নারীরা বিভিন্ন ধরনের শারীরিক সমস্যায় থাকেন। কিন্তু বেশিরভাগ নারীরা তাদের সমস্যাগুলো কাউকে বলতে পারে না। আর জানেও না বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের কাছে কি বলবে। তাই আজকের পোস্টি করা।

গাইনি (স্ত্রী রোগ/প্রসূতি) বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নেওয়ার পূর্বে করণীয় :

আপনার সঠিক বয়স ডাক্তারের কাছে লুকাবেন না এবং আপনার সবচেয়ে কষ্টকর সমস্যাগুলোর কথা সরোষে  আগে বলুন। যদি আপনার প্রস্রাবের সময় জ্বালা-পোড়া, তলপেটে হালকা ব্যথা , এবং মাঝে মধ্যে মাথাব্যথা হয় তাহলে মাথাব্যথার কথাটা আগে না বলে প্রস্রাবের জ্বালা-পোড়ার কথাটা আগে বলুন।

💊💊💊 রাজু আমান ডট কম 💊💊💊

প্রাসাঙ্গিক কোন তথ্য নিজে থেকে ডাক্তারকে জানাতে ভুলবেন না। আপনার ডায়াবেটিস, হাঁপানি, উচ্চ রক্তচাপ, হাইপোথায়রয়েডিজম (hypothyroidism), বা হৃদরোগ থেকে থাকে – তা ডাক্তারকে জানান। আপনার যদি কোন বড় অপরেশন হয়ে থাকে, আপনি যদি হেপাটাইটিস বি পজেটিভ হন বা কোন ক্রনিক রোগ থেকে থাকে তাহলে আপনার গাইনোকলোজিস্ট এর কাছে সেটা শেয়ার করুন।

তাছাড়াও, ডাক্তারের কাছে প্রসব সম্পর্কিত কোন তথ্য দয়া করে লুকাবেন না। আপনার কোন মৃত সন্তান হয়েছিল কিনা, সন্তান কয়টি, তাদের ডেলিভারি কীরকম হয়েছিল (স্বাভাবিক না সিজারিয়ান), মেন্সট্রুয়াল রেগুলেশন বা এম আর (MR) করেছিলেন কিনা, গর্ভপাত করে ছিলেন কিনা, করলে কোন ধরনের পিল সেবন করে গর্ভপাত (abortion) ঘটিয়েছিলেন, আপনার প্রজননতন্ত্রে বা অন্য কোথাও কোন অপারেশন হয়েছিল কিনা এবং আপনি বিবাহিত না অবিবাহিত এসব জানা একজন গাইনি বিশেষজ্ঞের জরুরী।

💊💊 razuaman.com💊💊

আর হ্যা, আপনার যোনির চারপাশটা যথাসম্ভব ভালভাবে শেভ করে নিন। গাইনি ডাক্তার একটি পার-ভ্যাজাইনাল পরীক্ষা করতে চাইতে পারেন, তাই দয়া করে ডাক্তারের কাছে যাওয়ার আগে পরিষ্কার হয়ে গোসল করে নিবেন। এটি ভদ্রতা।

ডাক্তারের কাছে যাওয়ার পূর্বে ঢিলেঢালা কাপড় পড়ুন। ঢিলে কোন সালোয়ার-কামিজ বা সাধারণ শাড়িই যথেষ্ট হবে। আপনি বিবাহিত বা অবিবাহিত যাই হন না কেন, আপনার গাইনি ডাক্তার আপনার তলপেট পরীক্ষা করতে চাইতে পারেন। যোনিপথের কোন রকম অস্বস্তির কথা ডাক্তারকে বললে উনি আঙ্গুল ব্যাবহার করে বা কোন যন্ত্র দিয়ে একটি পার-ভ্যাজাইনাল এক্সামিনেশন (per-vaginal examination) করে দেখবেন।

আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ হচ্ছে, আপনার মাসিক নিয়মিত হচ্ছে কিনা তা বোঝার চেষ্টা করুন। কেন না সব নারীদের মাসিক চক্র এক রকম নয়। কারও কারও মাসিক প্রতি ২১ দিন পর পর হয়, আবার কারও কারও টা ৩৫ দিন পর পর হতে পারে। তাই মাসিক অনিয়মিত ভাবে হলে তা ডাক্তারকে বলুন। তাছাড়াও বিশেষজ্ঞের কাছে যাওয়ার আগে অবশ্যই আপনার শেষবার মাসিক শুরু হওয়ার তারিখ মনে করে যাবেন। এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন। গাইনি বিশেষজ্ঞ আপনাকে এটি জিজ্ঞেস করবেন।

আরো পড়তে পারেন: রংপুরের মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারদের নাম, ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর

প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের নামের তালিকা:

🌻🌻 ( ডা. আনিসা বেগম ) 🌻🌻

এমবিবিএস, এমসিপিএস, এফসিপিএস
প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ-সার্জন
সহযোগী অধ্যাপক, প্রসূতি ও গাইনী বিভাগ
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার-১: এ্যাপোলো ডায়াগনস্টিক এ্যান্ড ইমেজিং সেন্টার, প্রধান শাখা (ইউনিট-২)
সময়: বিকেল ৪টা- রাত ৮টা।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৬১৯০৯, ০১৭৩৩০০৮০৮৮
চেম্বার-২: আপডেট ডায়াগনস্টিক সেন্টার
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৭৬৩-৫৫৫৫৫৫, ০১৮৮২-৫৫৫৫৫৫

🌿🌿 ডা. আজিজা বেগম (লুসি) 🌿🌿

এমবিবিএস, ডিজিও (ইউকে), এফসিপিএস (গাইনী)
অধ্যাপক, প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ইউনিট-২
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৯৪৪-৪৪৭৯১০

💮💮 ডা. মোছাঃ কামরুন নাহার জুঁই 💮💮

এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), এমসিপিএস, এফসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস্)
ফেলো- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (প্রজনন স্বাস্থ্য ইন্ডিয়া)
স্ত্রীরোগ, প্রসূতিবিদ্যা ও বিশেষজ্ঞ সার্জন
সহযোগী অধ্যাপক (গাইনী)
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৬৬০৭৫, ০১৭১২-২৫৮০৩৬

🍂🍂ডা. আনিসা বেগম🍂🍂

এমবিবিএস, এমসিপিএস, এফসিপিএস
প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ-সার্জন
সহযোগী অধ্যাপক, প্রসূতি ও গাইনী বিভাগ
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার-১: এ্যাপোলো ডায়াগনস্টিক এ্যান্ড ইমেজিং সেন্টার, প্রধান শাখা (ইউনিট-২)
সময়: বিকেল ৪টা- রাত ৮টা।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৬১৯০৯, ০১৭৩৩০০৮০৮৮
চেম্বার-২: আপডেট ডায়াগনস্টিক সেন্টার
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৭৬৩-৫৫৫৫৫৫, ০১৮৮২-৫৫৫৫৫৫

🌲🌲ডা. সৈয়দা নিগার সুলতানা 🌲🌲

এমবিবিএস, এফসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস্)
প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ,
চেম্বার: ইসলামী ব্যাংক কমিউনিটি হাসপাতাল রংপুর লিমিটেড।
সময়: বিকেল ৪টা-রাত ৯টা; শুক্রবারে বন্ধ।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৭১৮৯৯৭৫২০, ০৫২১-৬৮০৩১

🌸🌸ডা. মৌসুমী রানী বসাক🌸🌸

এমবিবিএস, এমএস (গাইনী এ্যান্ড অবস)
প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
সহকারী অধ্যাপক, গাইনী বিভাগ
নর্দান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: সেন্ট্রাল ল্যাবরেটরি।
সময়: ফোনে জেনে নিন।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৭৫৯-০৬৩৬৩৪, ০১৮৫৬-৪৫১২৯৩

☘️☘️ডা. সাবিহা নাজনীন পপি☘️☘️

এমবিবিএস, এফসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস)
প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
চেম্বার: প্রেসক্রিপশন পয়েন্ট ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ক্যান্ট পাবলিক স্কুল লিংক রোডে।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৭৩৩-৭৮৪৪২৪

🌸🌸ডা. সোনালী রানী মুস্তফী 💮💮

এমবিবিএস, এফসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস)
প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
সহকারী অধ্যাপক, গাইনী এ্যান্ড অবস
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: আপডেট ডায়াগনস্টিক সেন্টার
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৭৬৩-৫৫৫৫৫৫, ০১৮৮২-৫৫৫৫৫৫

💮💮ডা. সারমিন সুলতানা (লাকী) 💮💮

এমবিবিএস; এমসিপিএস; এমএস (অবস এ্যান্ড গাইনী)
প্রসূতি, স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
সহকারী অধ্যাপক, প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিভাগ
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
মোবাইল: ০১৭৫৪-৭০৭৪২৪
চেম্বার: সান ডায়াগনস্টিক সেন্টার।
সময়: বিকেল ৪টা- রাত ৮টা। শুক্রবারে সকাল ১১টা- দুপুর ২টা।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৫৫২৭১, ০১৭৫৬৬৩৩৮২২

🌹ডা. হাসিনা ফেরদৌসী🌹🌹

এমবিবিএস, এফসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস)
প্রসূতি ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
কনসালটেন্ট, গাইনী এ্যান্ড অবস
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: আপডেট ডায়াগনস্টিক সেন্টার
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৭৬৩-৫৫৫৫৫৫, ০১৮৮২-৫৫৫৫৫৫

🌹🌹ডা. সফুরা খাতুন🌹🌹

এমবিবিএস, এফসিপিএস (গাইনী)
প্রসূতি, স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
সহকারী অধ্যাপক, গাইনী বিভাগ
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: ট্রিটমেন্ট টাওয়ার।
সময়: ফোনে জেনে নিন।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৯৩০৭৬৯৯০৬

🏵️🏵️ডা. সাইদা বানু শুক্লা🏵️🏵️

এমবিবিএস, এফসিপিএস ও ডিজিও (বিএসএমএমইউ), ফেলো- বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ইন্ডিয়া)
বন্ধ্যাত্ব, স্ত্রী ও প্রসূতি রোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
কনসালটেন্ট (অবস এ্যান্ড গাইনী)
চেম্বার: আলম এক্স-রে ডায়াগনস্টিক সেন্টার।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৭১৩-৭০৯৬৬৪, ০১৭৮৫-২৮২৯৯১

🌱🌱ডা. ফেরদৌস আরা শেখ (হ্যাপি)🍀🍀

এমবিবিএস, এমএস (গাইনী এ্যন্ড অবস)
প্রসূতি, স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
সহপকারী অধ্যাপক, গাইনী এ্যান্ড অবস
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: ল্যাবএইড লিঃ (ডায়াগনস্টিক), রংপুর
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৫৬২৭৮, ০১৭৬৬৬৬৩০৯৯

☘️☘️ডা. ফেরদৌসী সুলতানা☘️☘️

এমবিবিএস (ঢাকা), এফসিপিএস, এমএস (গাইনী)
প্রসূতি, স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন ল্যাপারস্কপিক সার্জন (গাইনী)
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: তিস্তা ডায়াগনস্টিক সেন্টার।
সময়: বিকেল ৪টা- সন্ধ্যা ৭টা। শুক্রবারে বন্ধ।
মোবাইল: ০১৭১৬-৯৮০০৬৫

🌻🌻ডা. নাসরীন সুলতানা (ববি)🌼🌼

এমবিবিএস, এফসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস)
প্রসূতি, স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ইউনিট-১
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৫৩৮৯১, ০১৭৫৪৫৪৭০৯৭

💐💐ডা. মোছাঃ সুফিয়া খাতুন💐💐

এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), এফসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস)
প্রসূতি, স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: সততা ডায়াগনস্টিক সেন্টার।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৭৮৯-৭১১১১৮, ০১৯৫০-৬৮২২৯৮

🌸🌸ডা. ইসরাত জাহান (লোপা)🌸🌸

এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), ই.ও.সি, এফসিপিএস (অবস এ্যান্ড গাইনী)
প্রসূতি, স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
রংপুর মেডিকেল কলেজ, রংপুর।
চেম্বার-১: হেলথ কেয়ার ল্যাব
সময়: বিকেল ৩টা- রাত ৮টা। শুক্রবারে বন্ধ।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৫৫১২৩
চেম্বার-২: আর জি ডায়াগনস্টিক সেন্টার।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৭২২-৬৩৩৮৯৪

🌼🌼ডা. নিলুফার আক্তার নীলা🌼🌼

এমবিবিএস (ডিএমসি); বিসিএস (স্বাস্থ্য); এফসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস)
স্ত্রীরোগ, প্রসূতিবিদ্যা বিশেষজ্ঞ ও সার্জন,
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: ফোনে জেনে নিন।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৭৬০-৭১৬৮৬৯

🌼🌼ডা. নুসরাত হোসেন (লাজ)🌸🌸

এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), এফসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস)
পুরুষ ও মহিলা বন্ধ্যাত্ব বিশেষজ্ঞ
প্রসূতি, স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
কনসালটেন্ট (গাইনী এ্যান্ড অবস)
চেম্বার: ল্যাব এ ওয়ান
সময়: দুপুর ২.৩০টা- রাত ৮টা
শুক্রবারে- সকাল ১০টা- দুপুর ১টা
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১১৯৬-২৬৪৪২৪

🌹🌹ডা. লায়লা হোসনা বানু 🌹🌹

এমবিবিএস, এফসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস্), এমএস (গাইনী এ্যান্ড অবস্)
বিভাগীয় প্রধান, স্ত্রীরোগ ও প্রসূতি বিভাগ,
প্রাইম মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: মা-শিশু ও জেনারেল হাসপাতাল, রংপুর।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৫৬৬২৪, ০১৭০১-২৮২০২০, ০১৭০১-২৮২০১২

🌺🌺ডা. শাহী ফারজানা তাসমীন 🌺🌺

এমবিবিএস, এফসিপিএস (গাইনী)
স্ত্রীরোগ, প্রসূতিবিদ্যা ও ল্যাপারোস্কনিক সার্জন
সহযোগী অধ্যাপক, গাইনী বিভাগ
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল।
চেম্বার: পপুলার ইউনিট-১ এর পশ্চিম পার্শের ১ তলা বিল্ডিংয়ে।
সময়: বিকেল ৪.৩০টা- রাত ৯টা। শুক্রবার ও সরকারি ছুটির দিনে বন্ধ থাকে।
নোট: সিরিয়াল নিতে ১ দিন পূর্বে (শনিবারের জন্য বৃহস্পতিবার) সকাল ৮টা-১০টার মধ্যে ফোন করতে হবে।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০১৮১৮৩৪৮১১২, ০১৭৪২৭৪০৬৫৬

🍁🍁ডা. মোছাঃ মাহফুজা খানম (রিপা)🍁🍁

এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), এমএস (গাইনী এ্যান্ড অবস)
প্রসূতি, স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
কনসালটেন্ট, গাইনী এ্যান্ড অবস
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: এ্যানেক্স ডায়াগনস্টিক সেন্টার।
সময়: দুপুর ২টা- রাত ৮টা।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৬১৭৭৭, ০১৯২২-৫৮৮০৬১, ০১৭৬৭-৫৫৩৫২২

🌳🌳ডা. বিলকিস বেগম লিপি🌳🌳

এমবিবিএস, বিসিএস (স্বাস্থ্য), ডিজিও, ডি এম সি এইচ
প্রসূতি, স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার-১: ল্যাবএইড লিঃ (ডায়াগনস্টিক), রংপুর
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৫৬২৭৮, ০১৭৬৬৬৬৩০৯৯
চেম্বার-২: সেবা প্যাথলজিক্যাল সেন্টার।
সময়: বিকেল ৩টা- রাত ৮টা। শুক্রবার বন্ধ।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৬২২৭৬, ০১৮৪৫-৯৮০০৯৬

🌱🌱ডা. মৌসুমি হাসান🌱🌱

এমবিবিএস, এমএস (গাইনী এ্যান্ড অবস্)
গাইনী বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
সহকারী অধ্যাপক
রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল।
চেম্বার: ডক্টরস ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ইউনিট-২
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৬১১১৬, ০১৭০১-২৬৪৭১৭

🌷🌷ডা. মোঃ জাফিরুল হাসান🌷🌷

এমবিবিএস, এফসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস)
গাইনী ও স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ
অধ্যাপক ও প্রাক্তন বিভাগীয় প্রধান
স্ত্রীরোগ ও প্রসূতি বিভাগ
রংপুর কমিউনিটি মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, রংপুর।
চেম্বার: এ্যাপোলো ডায়াগনস্টিক এ্যান্ড ইমেজিং সেন্টার, মেডিকেল মোড় শাখা (ইউনিট-১)
মোবাইল: ০১৭১০-৯১৯১৪৯
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৬৫৮৪২, ০১৭৩৩০০৮০৮৭

💐💐ডা. ইফফাত আরা (টিউলিপ)💐💐

এমবিবিএস, এফসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস)
প্রসূতি, স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
কনসালটেন্ট, গাইনী এ্যান্ড অবস
চেম্বার: পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ইউনিট-১
সময়: বিকেল ৪.৩০টা- রাত ৯টা। শুক্রবারে বন্ধ।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৫৩৮৯১, ০১৭৫৪৫৪৭০৯৭

🌴🌴ডা. কিসমত আরা (মালা) 🌴🌴

এমবিবিএস, এমসিপিএস (গাইনী এ্যান্ড অবস), এফ আরএসএইচ (লন্ডন)
স্ত্রীরোগ বিশেষজ্ঞ ও সার্জন
গাইনী কনসালটেন্ট
চেম্বার: পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার, ইউনিট-১
সময়: বিকেল ৪টা- সন্ধ্যা ৭টা, শুক্রবার বন্ধ।
সিরিয়ালের জন্য ফোন: ০৫২১-৫৩৮৯১, ০১৭৫৪৫৪৭০৯৭

শেষ কথা

সম্মানিত ভিউয়াস, আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ আমার আর্টিকেলটি পড়ার জন্য। আর হ্যাঁ, আমার আর্টিকেলটি পরে যদি আপনি একটু উপকৃত হন, তাহলে আমি নিজেকে ধন্য মনে করব। আমি প্রতিনিয়তঃ চেষ্টা করি নতুন নতুন বিষয় আর্টিকেল লেখার। তাই আপনারা যারা আপডেট কোনো বিষয় সম্পর্কে জানতে চান তারা প্রতিনিয়ত আমার সাইটকে ভিজিট করতে পারেন। আপনার যদি কোন বিষয় সম্পর্কে জানার আগ্রহ থাকে। তাহলে আপনারা কমেন্ট বক্সে কমেন্টের মাধ্যমে বলতে পারেন। আমি যথাসাধ্য চেষ্টা করব ইনশাআল্লাহ আপনার বিষয়  নিয়ে আর্টিকেল লেখার । এই আশা ব্যক্ত করে আবারো সালাম দিয়ে শেষ করছি আসসালামু আলাইকুম রহমতুল্লাহ বারাকা তুহ।

🌹Razuaman.com🌹

Leave a Reply

Your email address will not be published.