বিকাশ

সাইবার হামলা ঠেকাতে সক্ষমতায় দ্বিতীয় বিকাশ

বিদেশে অর্থপাচারের ঘটনায় আদালতের নির্দেশে ১৩ বিবাদী আট মাসেও প্রতিবেদন না দেওয়ায় উষ্মা প্রকাশ করেছে বাংলাদেশের হাই কোর্ট।
সাইবার হামলা ঠেকাতে সবচেয়ে সক্ষম প্রতিষ্ঠান হিসেবে সরকারি এক প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ ব্যাংকের পরেই জায়গা করে নিয়েছে মোবাইলে আর্থিক সেবাদাতা বিকাশ। আইসিটি বিভাগের অধীন বাংলাদেশ কম্পিউটার ইনসিডেন্ট রেসপন্স টিম (বিজিডি ই-গভ সার্ট) এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করে বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে বিকাশ।

বাংলাদেশের ৫০তম বিজয় দিবস ও মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে বাংলাদেশ কম্পিউটার ইনসিডেন্ট রেসপন্স টিম (বিজিডি ই-গভ সার্ট) আয়োজিত এই সাইবার ড্রিল অনুষ্ঠানে ৩৮টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান দলগতভাবে অংশগ্রহণ করে। এতে সর্বোচ্চ ৫৫ নম্বর পেয়ে প্রথম হয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক এবং ৫২ নম্বর পেয়ে দ্বিতীয় হয়েছে বিকাশ।

আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো সাইবার হামলা মোকাবিলায় প্রযুক্তিগত, অবকাঠামোগত, বিশ্লেষণাত্মক ও সতর্কতামূলক কত ধরনের এবং কেমন প্রস্তুতি নিয়েছে এসব সূচকের উপর নির্ভর করে প্রতিযোগিতায় বিজয়ী নির্বাচন করা হয়েছে। সাইবার হামলা মোকাবিলায় সতর্কতা ও সচেতনতা তৈরিতে দিনব্যাপী আয়োজনে এই ড্রিলের পাশাপাশি উন্নত প্রযুক্তির ব্যবহার এবং এই বিষয়ে আরো প্রশিক্ষণ আয়োজনের প্রয়োজনীয়তার কথাও উঠে আসে।

সাইবার হামলা ঠেকাতে সক্ষমতায় দ্বিতীয় বিকাশ

বিকাশের চিফ প্রোডাক্ট অ্যান্ড টেকনোলজি অফিসার মোহাম্মদ আজমল হুদা বলেন, ‘সাইবার নিরাপত্তা আমাদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এটি নিশ্চিত করতে এ খাতে আমরা নিয়মিত বিনিয়োগ করে থাকি এবং প্রযুক্তি জ্ঞানকে সমৃদ্ধ করার উপর জোর দিয়ে থাকি। এ ধরনের সাইবার ড্রিল আমাদের প্রযুক্তিগত সক্ষমতাকে মূল্যায়ন করা এবং উৎকর্ষতার নতুন ক্ষেত্রকে চিহ্নিত করার সুযোগ করে দেয়।’

দেশের সাইবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, ২০১৮-এর বিধান অনুযায়ী গঠিত বিজিডি ই-গভ সার্টের উদ্যোগে দ্বিতীয়বারের মতো আয়োজিত এ সাইবার ড্রিলের সার্বিক সহায়তা ও তত্ত্বাবধানে ছিল ডিজিটাল নিরাপত্তা এজেন্সি এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল।

আরো পড়ুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published.