তথ্য

সাপের মতো এই মাছটি দেখলেই সাথে সাথে মেরে ফেলার নির্দেশ….

সাপের মতো এই মাছটি দেখলেই সাথে সাথে মেরে ফেলার নির্দেশ

লাইফস্টাইল ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের সমুদ্র বিজ্ঞানীরা এমন কিছু মাছে খুঁজে পেয়েছেন যারা জল ছাড়াও বেঁচে থাকতে পারে। কিছুদিন আগে বারানসির গঙ্গা নদীতে ধরা পড়েছিল অ্যামাজন নদীর মাছ যার জন্য ভয়ে ভীত ও আতঙ্কিত ছিল বিজ্ঞানীরা।

এরকম বহু মাছ আছে যে মাছগুলি বাইরের দেশে সমুদ্রের জলে পাওয়া যায় কিন্তু কিছু কিছু মাছ প্রবেশ করে যায় গঙ্গা নদীতে অথবা তাদের দেখতে পাওয়া যায় বাংলারই কোন নদীতে। কিন্তু সাধারণ মানুষ মাছ গুলির ব্যাপারে না জেনে আকৃষ্ট হয়ে যায় তাই সতর্কবার্তা জারি করে, বিজ্ঞানীরা। এবার এরকমই একটি মাছ নিয়ে সতর্কবার্তা দিলেন বিজ্ঞানীরা যা দেখলে মেরে ফেলার কথা বলেছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সমুদ্র বিজ্ঞানীরা এমন কিছু মাছে খুঁজে পেয়েছেন যারা জল ছাড়াও বেঁচে থাকতে পারে। এরকম একটি স্নেক হেড ফিশ নামক মাছকে নিয়ে সতর্কবার্তা জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। মাছটিকে দেখতে সাপের মত। মাছটি প্রায় ১৮ পাউন্ডের হয় এবং রয়েছে ধারালো দাঁত ও।

এই কারণে মাছটির শিকার করতে কোন অসুবিধা হয় না যেটি একটা বড় সমস্যার কারণ। মাছটি অনায়াসে খেয়ে ফেলতে পারে জলের অন্যান্য মাছেদের আর তাই বিজ্ঞানীরা জানায় মাছটিকে দেখতে পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে যেন মেরে ফেলা হয়।

পাহাড় থেকে ঝড়ছে দুধ সাদা ঝরনার পানি, পাশেই ছুটছে ট্রেন

মাছটিকে ১৯৯৭ সালে একবার ক্যালিফোর্নিয়ার সান বার্নাডিনোর সিলভার হুড লেকে ধরা পড়েছিল এই মাছটি। এরপরে টিকে জর্জিয়ার লেকে পেয়ে হতবাক বিজ্ঞানীরা। মাছটি দেখতে সাপের মতো বলেই নাকি তার নাম দেওয়া হয়েছে স্নেকহেড ফিস। তবে বিজ্ঞানীদের অনুমান এটা পূর্ব এশিয়ার মাছ এমনটাই তারা জানিয়েছে। ২০০২ সালে স্নেক হেডফিশ ধরা এবং বিক্রি করা বেআইনি বলে ঘোষণা করা হয়েছিল। বিজ্ঞানীরা গবেষণা করে জানিয়েছিলেন মাছটি শ্বাসতন্ত্র এমন ভাবে তৈরি যাতে সে বাতাস থেকে মানুষের মতো শ্বাস নিতে পারে। তাই মাছটি জলের পাশাপাশি ডাঙাতে ও বসবাস করতে পারে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published.